Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কী সেবা কীভাবে পাবেন

 

ক্রঃ নং

সেবা সমূহ

কি সেবা কিভাবে পাবেন

০১

‘‘জীবিকায়নের জন্য মহিলাদের দক্ষতা ভিত্তিক প্রশিক্ষণ’’ 

 শীর্ষক কর্মসূচি।

জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয়, লালমনিরহাট হইতে আধুনিক দর্জি বিজ্ঞান ও এমব্রয়ডারী, শো-পিছ তৈরী, কাগজের ঠোংগা তৈরী, বিউটিফিকেশন কোর্স এবং পাটজাত দ্রব্য তৈরী/ ব্যাগ তৈরী মোট ০৫টি ট্রেডে ১০ জন করে মোট ৫০ (পঞ্চাশ) জন প্রশিক্ষনার্থীকে দৈনিক ২০/- (বিশ) টাকা হারে ভাতা প্রদান সহ ৩ (তিন মাস) মেয়াদে প্রশিক্ষন প্রদান করা হয়ে থাকে। 

০২

ভিজিডি কর্মসূচি

 

লালমনিরহাট সদর উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন পর্যায়ে মোট ১৭০২ জন দুঃস্থ মহিলাদেরকে ২ বছর মেয়াদে প্রতিমাসে মাথাপিছু ৩০ কেজি হারে খাদ্য শষ্য বিতরণ করা হয় ও চুক্তি বদ্ধ এনজিও এর মাধ্যমে প্যাকেজ সেবা ও প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। তহবিল গঠনের জন্য কার্ড প্রতি মাসিক ৪০/- হারে সঞ্চয়ী টাকা ব্যাংকে জমা করা হয়। মেয়াদ শেষে উপকারভোগীকে সুদসহ সঞ্চয়ী সমুদয় টাকা একযোগে ফেরৎ প্রদান করা হয়। 

০৩

দরিদ্র মা’র জন্য মাতৃত্বকাল ভাতা প্রদান কর্মসূচী

 

লালমনিরহাট সদর উপজেলার ০৯টি ইউনিয়ন পর্যায়ে মোট ১৮৯ জন গর্ভবতী দুঃস্থ মহিলাদেরকে ২৪ মাস মেয়াদে প্রতিমাসে ৩৫০/- টাকা হারে ভাতা প্রদান করা হয় ও চুক্তি বদ্ধ এনজিও এর মাধ্যমে উপকাভোগীদেরকে প্যাকেজ সেবার মাধ্যমে স্বাস্থ্যসহ বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষন প্রদান করা হয়।

০৪

কর্মজীবী ল্যাকটেটিং মাদার সহায়তা তহবিল কর্মসূচী

 

লালমনিরহাট পৌরসভায় ০৯টি ওয়ার্ড পর্যায়ে ২০১২-২০১৩ এবং ২০১৪-২০১৫ অর্থ বছরে মোট ১০৫০ জন কর্মজীবি ল্যাকটেটিং মাদার কে ২৪ মাস মেয়াদে প্রতিমাসে ৪০০/-টাকা হারে ভাতা প্রদান করা হয় ও চুক্তি বদ্ধ এনজিও এর মাধ্যমে উপকারভোগীদেরকে প্যাকেজ সেবার মাধ্যমে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।

০৫

নিবন্ধীকৃত স্বেচ্ছাসেবী মহিলা সংগঠন সমূহঃ

 

স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো উন্নয়ন মূলক কার্যক্রম করে থাকে যেমন গবাদি পশু পালন, সবজি চাষ, মৎস্য চাষ, গাভী পালন, সেলাই প্রশিক্ষণ ইত্যাদি। সচ্ছল সমিতিকে বাৎসরিক এক কালীন অনুদান প্রদান করা হয়। লালমনিরহাট জেলার নিবন্ধীকৃত স্বেচ্ছাসেবী মহিলা সংগঠনের মাধ্যমে নারীদের উন্নয়নে সমিতির সভানেত্রী/সম্পাদিকার নেতৃত্বে গ্রামের প্রত্যন্ত এলাকার মহিলাদেরকে স্বাক্ষর জ্ঞান দান, নারী নির্যাতন প্রতিরোধ, বাল্যবিবাহ বন্ধ, যৌতুক নিরোধ, নারী ও শিশু পাচার প্রতিরোধ, নারীদেরকে সু-শিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তোলার জন্য উঠান বৈঠকের মাধ্যমে জ্ঞানদান করা হয়ে থাকে।